খোকার জীবনে রেণু

খোকার জীবনে রেণু

বই মানুষের জীবনের গূঢ় অর্থ বুঝতে সহায়তা করে। অনেকদিনের বন্ধ দরজা খুলে দিলে যেমন হঠাৎ একরাশ আলো এসে চোখে লাগে, কোনো কোনো বই সেরকম প্রভাব রাখে। একটি ভালো বই কখনো কখনো প্রেরণা হিসেবে কাজ করে। জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত কোনো কোনো বইয়ের রেশ থেকে যায় মনে।

এ দিক দিয়ে ইতিহাসনির্ভর বই ইতিহাসের স্বরূপ উন্মোচনের ক্ষেত্রে যথার্থ নিয়ামক হিসেবে কাজ করে। এ ধরনের বই ইতিহাসপ্রেমীদের অনুসিন্ধুৎসু মনের খোরাক যোগায়।
‘খোকার জীবনে রেণু’ বইটি পড়ার পর মনে হয়েছে, বইটি সামগ্রিকভাবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিণী শেখ ফজিলাতুন নেছার পুরো জীবনের একটি ছবি। পাশাপাশি ঘটনার বিবরণ এমন সুবিন্যস্ত করা হয়েছে যে, বইপ্রেমীদের মনোযোগ আকর্ষণ ধরে রাখবে।
বেগম মুজিবকে জানার জন্য সুগঠিত এবং সহজপাঠ্য বই হিসেবে খোকার জীবনে রেণু অনন্য। কারাগারের রোজনামচা ও অসমাপ্ত আত্নজীবনীতে বেগম মুজিবের অবদানকে যথাযথভাবে স্মরণ করেছেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

বাংলাদেশ জাতি রাষ্ট্র গঠনের পিছনে যোগ্য নেতার সাহচর্য হিসেবে বেগম মুজিবের অতুলনীয় অবদান রয়েছে। বলা যায়, আন্দোলন সংগ্রামে বিচক্ষণ সিদ্ধান্ত দিয়ে বঙ্গবন্ধুকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন তিনি। বিশেষ করে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের মহাগুরুত্বপূর্ণ ঘটনাগুলোতে বেগম মুজিবের ঈর্ষণীয় অবদান বইয়ে পরিপূর্ণরূপে তুলে এনেছেন লেখক।
যেটা জানতে পেরেছি, বইটি লেখার জন্য লেখক প্রায় ২৮টি বইয়ের তথ্য যাচাই ও মূল্যায়ন, বেশ কিছু সাক্ষাৎকার ও ভিডিও’র সহায়তা নিয়েছেন। এভাবে যত্ন সহকারে পান্ডুলিপিটি প্রস্তুত করায় তথ্য বিকৃতি রোধ সম্ভব হয়েছে।

ফজিলাতুন নেছা মুজিবের বিয়ে, পারিবারিক জীবন, সংসার, ছেলেমেয়েদের পড়াশোনা, স্বামীর কারাগারে থাকাকালীন সময়ে সংসার পরিচালনা, বঙ্গবন্ধুর অবর্তমানে রাজনৈতিক দল পরিচালনা, সংসারের খরচ বাঁচিয়ে রাজনৈতিক নেতাদের সহযোগিতা করা ও দেশের গুরুত্বপূর্ণ সংকটে বিচক্ষণ সিদ্ধান্ত দিয়ে পরিস্থিতিকে বাঙালি জাতির জন্য সহনীয় করে তোলার ক্ষেত্রে বেগম মুজিবের দূরদর্শি ভূমিকা বাঙালি জাতি আজীবন মনে থাকবে।

স্বাধীনতা যুদ্ধ পরবর্তী সময়েও শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব বীরাঙ্গনাদের পুনর্বাসনে ‍যথার্থ দায়িত্ব পালন করেছিলেন এবং স্বদেশ বিনির্মাণের ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধুর সহযোগী হিসেবে কাজ করেছিলেন। সকল বিষয়াদি লেখক সুনিপুণভাবে তুলে আনার চেষ্টা করেছেন যা প্রশংসার দাবি রাখে।
বেগম মুজিবের জীবন নিয়ে জানার জন্য খোকার জীবনে রেণু বইটি একটি অনবদ্য দলিল। লেখকের কাছ হতে এমন গবেষণাধর্মী লেখার প্রত্যাশা রাখছি এবং বইটির উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করছি ।

লেখক : ডা. ফাতেমা তুজ জহুরা মৌ

এখানে মন্তব্য করুন :